• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

বরিশালে বাল্যবিয়ের চেষ্টাকালে কাজীসহ আটক ৩

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৮:০৫ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০১৬

বরিশাল: বরিশাল নগরীতে বাল্যবিবাহ চেষ্টাকালে বিয়ের আসর থেকে কিশোর-কিশোরী এবং কাজীকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার বেলা ১২টার দিকে কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের পলাশপুর এলাকার একটি কাজীর অফিস থেকে আটক করা হয়।’

আটকরা হলেন, বরিশাল নগরীর বাজার রোড দপ্তরখানা এলাকার বাসিন্দা হাজী মোহাম্মদ মহসিন মার্কেটের ব্যবসায়ী ইব্রাহিম সিকদারের ছেলে নবীন সিকদার (১৪) এবং পলাশপুর ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাজী জাকারিয়া।

বরিশাল মেট্রোপলিটন মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অরবিন্দু বিশ্বাস জানান, ঢাকা মিরপুর ১০ এর বাসিন্দা মৃত বাদল সিকদারের মেয়ে মরিয়ম আক্তার বরিশাল নগরীর ভাটিখানা এলাকায় নানার বাড়িতে থেকে লেখা পড়া করছিলো। সেই সময় দপ্তরখানা এলাকার বাসিন্দা ইব্রাহিমের ছেলে রবীনের সাথে কিশোরীর প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।

সম্প্রতি শেষ হওয়া এসএসসি পরীক্ষা শেষে মরিয়ম আক্তার মরিয়মকে ঢাকায় তার মায়ের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

কিন্তু ঢাকা ১০ নম্বর এলাকায় মরিয়মের বাসার পাশেই মিরপুর ১১ নম্বরে ইব্রাহিমের খালার বাসা। ওই বাসায় গিয়ে অবস্থান নেয় ইব্রাহীম। এবং পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী গত রোববার সকালে মা গার্মেন্টেস কাজে গেলে তার বাসা থেকে মরিয়মকে বরিশালে নিয়ে আসে ইব্রাহিম।’

পরে তাকে বরিশালে দপ্তরখানা এলাকায় এনে ইব্রাহিমের বাসায় রাখা হয়। বুধবার বেলা ১২টার দিকে কিশোরীকে বিয়ের উদ্দেশ্যে ৫নম্বর ওয়ার্ডের কাজী অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন কাজী জাকারিয়া তাদের বিয়ে দেয়ার প্রস্তুতি নিলে মহিলা অধিপ্তরের কর্মকর্তা এবং পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে কিশোরীকে উদ্ধার করে।

সেই সাথে কিশোর রবীন এবং কাজী জাকারিয়াকেও আটক করে কোতয়ালি থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। পরবর্তীতে তাদের বরিশাল জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করা হয়। এসময় প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেয়ার বিষয়টি জানালে তারা মুছলেকা দিয়ে মুক্তি হন।’

লাইভ

টপ