• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

পবিপ্রবিতে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার, চাঁদা দাবি

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৯:৫০ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি রাতের আঁধারে গাছ থেকে খুলে ফেলে একই স্থানে শাখা ছাত্রলীগের এক নেতার ছবি সংবলিত ব্যানার টাঙ্গিয়ে পরিকল্পিতভাবে ওই নেতার ওপর দায় চাপিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তার কাছে মুঠোফোনের মাধ্যমে চাঁদা দাবি করেছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের সামনে থাকা সারিবদ্ধ নারিকেল গাছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি টানানো ছিল। গত ১৯ ডিসেম্বর গভীর রাতে এসব গাছে থেকে তাদের ছবি সরিয়ে পরিকল্পিতভাবে পবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রাকিবুল ইসলাম রাকিবের ছবি সংবলিত ব্যানার ও প্লাকার্ড টানিয়ে দেয় একটি চক্র। এসময় তারা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি মাটিতে রেখে ছবি তোলেন ও ভিডিও করেন।

পরে কয়েকটি মোবাইল নম্বর থেকে নিজেদের পরিচয় গোপন রেখে রাকিবের কাছে চাঁদা দাবি করে ওই চক্রের কয়েকজন সদস্য। টাকা না দিলে ওই ছবি-ভিডিও ইন্টারনেট ও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকিও দেয় তারা। এ ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে পবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, পবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত এক নেতা ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটিতে চাপে রাখতে এ নাটক সাজিয়েছেন। এর আগেও তিনি ক্যাম্পাসকে অস্থীতিশীল করতে প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হন।

এ ব্যাপারে পবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রাকিবুল ইসলাম রাকিব বলেন, একটি কু-চক্রি মহল রাতের আঁধারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি সরিয়ে ফেলে সেখানে আমার ছবি সংবলিত ব্যানার টানিয়ে ছাত্রলীগকে বিতর্কিত করার চেষ্টা চালিয়েছে। পুরো ঘটনাই ছিল পূর্বপরিকল্পিত। আমার দৃঢ় বিশ্বাস বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী কোন ছাত্রলীগ কর্মী এ ধরনের ন্যাক্কারজনক কাজ করতে পারে না। এ ঘটনায় যারা জড়িত তাদের খুঁজে বের করা হবে।

তিনি আরও জানান, চাঁদা দাবির ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে।

লাইভ

টপ