• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

পর্যটন বর্ষেও অর্থ দিচ্ছে না অর্থমন্ত্রী

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৯, ২০১৬

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৬ সালকে পর্যটন বর্ষ হিসেবে ঘোষণা করেছেন, অথচ অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুর মুহিত অর্থ ছাড় দিচ্ছেন না। ফলে পর্যটন সেক্টর উন্নয়নে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বেসরকারি বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে চার দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা ‘নভোএয়ার-ঢাকা ট্রাভেল মার্ট-২০১৬’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘পর্যটন বছরের শুরুতে পর্যটন নগরী কক্সবাজারে সাড়ম্বরে ‘মেগা বিচ কার্নিভাল’ উদযাপন করা হয়েছে এবং প্রধানমন্ত্রী সাবরাং এক্সক্লুসিভ ট্যুরিস্ট জোনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন। এক সময় চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজারে যেতে যোগাযোগ ব্যবস্থা খুব খারাপ ছিল। এখন সেটা দূর করা হচ্ছে। চট্টগ্রামের দোহাজারি থেকে কক্সবাজার হয়ে গুণধুম পর্যন্ত রেল লাইন স্থাপনের কাজ শুরু করা হচ্ছে। কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ স্থাপনের কাজও শুরু করা হয়েছে। এছাড়া লেবুখালী ব্রিজ নির্মিত হওয়ায় পটুয়াখালী থেকে কুয়াকাটা আর কোনো ফেরি থাকবে না। এর ফলে পর্যটকরা স্বাচ্ছন্দ্যে ভ্রমণ করতে পারবে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দি বাংলাদেশ মনিটর সম্পাদক কাজী ওয়াহিদুল আলম, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নভোএয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মফিজুল রহমান, ট্যুরিজম মালয়েশিয়ার পরিচালনা পর্ষদের সদস্য এবং মালয়েশিয়া সরকারের সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রীর উপদেষ্টা দাতো দলজিৎ সিং, ট্যুরিজম অভোরিটি অব ফাইল্যান্ডের পরিচালক ইসরা স্টাপানাসেথ।

পর্যটন এ মেলায় স্বাগতিক বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের ৫০টির অধিক সংস্থা মেলায় অংশ নিচ্ছে, যার মধ্যে রয়েছে জাতীয় পর্যটন সংস্থা, বিমান সংস্থা, ট্রাভেল ও ট্যুর অপারেটর, হোটেল ও রিসোর্ট, পর্যটন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান। অংশগ্রহণকারী সংস্থাগুলো দর্শনার্থীদের জন্য হ্রাসকৃত মূল্যে বিমান টিকেট, আকর্ষণীয় ট্যুর প্যাকেজসহ বিভিন্ন সেবা উপস্থাপন করছে।

মেলা উপলক্ষে আগামীকাল শনিবার ( ৯ এপ্রিল) সোনারগাঁগ হোটেলে ‘বাংলাদেশে মাইস ট্র্যরিজম’ শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এফবিসিসিআই’র সভাপতি আব্দুল মতলুব আহমেদ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন।

ট্যুরিজম মালয়েশিয়া এবং ট্যুরিজম অথোরিটি অব থাইল্যান্ড বিটুবি মিটিংসহ বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। ট্যুরিজম মালয়েশিয়ার উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদলসহ একটি সাংস্কৃতিক দলও এ মেলায় অংশ নিচ্ছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার প্রথমদিন বিকেল ৪টা থেকে রাত ৯টা এবং আগামীকাল শনিবার থেকে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এ মেলা চলবে। মেলায় প্রবেশমূল্য রাখা হয়েছে জনপ্রতি ২৫ টাকা। প্রবেশ কুপণের ওপর মেলার শেষদিন (১১ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় গ্র্যান্ড র‌্যাফেল ড্র’র ব্যবস্থাও থাকবে। র‌্যাফেল ড্র বিজয়ীদের জন্য রয়েছে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন গন্তব্যে এয়ার টিকেট, ট্যুর প্যাকেজ, তারকা হোটেলে রাত্রিযাপন, লাঞ্চ ও ডিনার কুপণসহ বিভিন্ন পুরস্কার।

লাইভ

টপ