• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

স্বামীর মামলায় প্রেমিকসহ স্ত্রীকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে আদালত

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৫:৫২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০১৭

স্বামীর বাড়ির মালামাল ট্রাকে ভর্তি করে নিয়ে ঢাকা থেকে পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় প্রেমিকের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিলেন রোমানা আফরোজ। সঙ্গে ছিল দুই সন্তানও। এ ঘটনায় রোমানার স্বামী শওকত মামলা দায়ের করলে রোমানা ও তার প্রেমিক মিরনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার ভান্ডারিয়া থেকে তাদের দু’জনকে গ্রেফতারের পর ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর মঙ্গলবার ওই মামলায় আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, রোমানার স্বামী শওকত হোসেন সৌদি প্রবাসী। দুই ছেলে রায়হান ও নূর হোসেনকে নিয়ে রোমানা থাকতেন স্বামীর বাড়ি, রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর গোবিন্দপুর বাগানবাড়ি এলাকার আয়শা মঞ্জিলে। ফেসবুকে আরেক সৌদি প্রবাসী রিয়াজ মোহাম্মদ মিরনের সঙ্গে রোমানার পরিচয় হয়। মিরনের বাড়ি পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার হেতালিয়া গ্রামে। একপর্যায়ে দু’জনের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

ওসি কামরুজ্জামান জানান, রোমানা গত শনিবার তার দুই ছেলে রায়হান ও নূর হোসেনকে নিয়ে মিরনের গ্রামের বাড়ি ভান্ডারিয়ায় আসে। এসময় শওকতের যাত্রাবাড়ীর বাসায় থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, আসবাবপত্রসহ প্রায় ৪৯ লাখ টাকার মালামাল দু’টি ট্রাকে ভর্তি করে নিয়ে যান রোমানা। সম্প্রতি দেশে আসা রোমানার স্বামী শওকত এ ঘটনায় বাদী হয়ে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা দায়ের করেন। সোমবার যাত্রাবাড়ী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাকির হোসেন ভান্ডারিয়া থানার পুলিশের সহায়তায় হেতালিয়া গ্রাম থেকে রোমানা ও মিরনকে গ্রেফতার করে ঢাকায় নিয়ে যায়। এসময় মিরনের গ্রামের বাড়ি থেকে রোমানার নিয়ে আসা মালামালও উদ্ধার করে নিয়ে যায় পুলিশ।

যাত্রাবাড়ী থানার এসআই জাকির হোসেন জানিয়েছেন, রোমানা ও মিরনকে মঙ্গলবার ওই মামলায় আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

লাইভ

টপ