• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

স্বরুপকাঠিতে নিখোঁজ গৃহবধূর কঙ্কাল উদ্ধার

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৮:০৪ অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০১৭

পিরোজপুরের স্বরুপকাঠি  উপজেলায় নিখোঁজ হওয়ার ১৫ দিন পর রোজিনা আক্তার মায়া (২৮) নামে এক গৃহবধূর কঙ্কাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৯ মে) দুপুরে সদর উপজেলার নলবুনিয়া গ্রামের কঁচা নদীর পাড় থেকে কঙ্কালটি উদ্ধার করা হয়।

রোজিনা আক্তারের মা পিয়ারা বেগম ও ভাই পলাশ খান পোশাক দেখে লাশটি রোজিনার বলে শনাক্ত করেন।

রাজিনা আক্তার মায়া উপজেলার সেহাংগল গ্রামের ইলিয়াস হোসেনের স্ত্রী। তার বাবার বাড়ি ঝালকাঠী সদর উপজেলার মির্জাপুর গ্রামে।

পুলিশ জানায়- গত ৪ মে (বৃহস্পতিবার) রাত ১০টার দিকে রোজিনা আক্তারের সঙ্গে স্বামী ইলিয়াস হোসেনের বাকবিতণ্ডা হয়। পরে ইলিয়াস আলী ঘর থেকে বের হয়ে যান। এরপর রোজিনা তার স্বামীকে খুঁজতে বের হন।

গভীর রাতে ইলিয়াস ঘরে ফিরে এলেও রোজিনা আর ফিরে আসেননি। ওই সময় রোজিনার মা পিয়ারা বেগম মেয়ের বাড়িতে ছিলেন। তিনি ইলিয়াসের কাছে মেয়ের সম্পর্কে জানতে চাইলে ইলিয়াস জানায় রোজিনার বিষয়ে সে কিছু জানে না।

খোঁজাখুঁজির পরেও রোজিনাকে কোথাও না পেয়ে একপর্যায়ে ৭ মে রোজিনার ভাই পলাশ খান স্থানীয় থানায় নিখোঁজের ঘটনায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

এ ঘটনার দুই দিন পর পুলিশ ইলিয়াস হোসেনকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠায়।

শুক্রবার সকালে পিরোজপুর সদর উপজেলার শারিকতলা ডুমরিতলা ইউনিয়নের নলবুনিয়া এলাকায় কঁচা নদীর পাড়ে স্থানীয় লোকজন একটি লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়।

পরে পুলিশ দুপুরে গলিত মরদেহের কঙ্কালটি উদ্ধার করে। খবর পেয়ে রোজিনার মা ও ভাই ঘটনাস্থলে এসে শরীরের পোশাক দেখে মরদেহটি রোজিনার বলে শনাক্ত করেন।

পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুমুর রহমান বিশ্বাস বরিশালটাইমসকে জানান, খবর পাওয়ার পরে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। পরে পিরোজপুর সদর হাসপাতাল মর্গে মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এ ঘটনায় নেছারাবাদ থানায় মামলা হবে বলেও জানান তিনি।’’

লাইভ

টপ