• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

সেই নকল ডিমের সন্ধানে মাঠে জেলা প্রশাসন

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৪:২৬ অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০১৬

বরিশাল: এবার সেই নকল ডিম বিক্রি করা দোকানগুলোর সন্ধান নিশ্চিত হতে মাঠে নেমেছে বরিশাল জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসনের ‘সমস্যা ও সম্ভবনা’ ফেসবুক পেইজে বৃহস্পতিবার একটি কমেন্ট পোস্ট করে বিষয়টি জানান দিয়েছেন প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান।

নিশ্চিত হওয়া গেছে খোদ জেলা প্রশাসক নিজেই নকল ডিমের দোকানগুলো শনাক্তে মাঠে নেমেছেন। যে কারণে তিনি তার ‘সমস্যা ও সম্ভবনা’ ফেসবুক পেইজে সেই নকল ডিম বিক্রির প্রাপ্তিস্থান জানাতেও অনুরোধ করেছেন।

জেলা প্রশাসনের ওই পেইজটিতে বুধবার রাতে নকল ডিম বরিশালের বাজারে আসার বিষয়টি জানিয়ে তা বিক্রি বন্ধে ছবিসহ একটি কমেন্ট করেন তানসিম মাহমুদ সিয়াম নামে এক ব্যক্তি। ফলশ্রুতিতে সেই পোস্টটি পেয়ে “বরিশালের বাজারে নকল ডিম” শিরোনামে একটি সংবাদ তাৎক্ষণিক প্রকাশ করে বরিশালের জনপ্রিয় অনলাইন গণমাধ্যম বরিশালটাইমস।

অবশ্য ওই সংবাদে নকল ডিমের ক্ষতিকর বিষয়ক নানা দিকও চিকিৎসাবীদদের বরাত দিয়ে তুলে ধরা হয়। অত:পর সেই সংবাদটি জেলা প্রশাসনের পেইজে পোস্ট করা হলে শুরু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সৃষ্টি হয় তোলপাড়। সংবাদটি পড়ে পাঠকরা নকল ডিম বিক্রি বন্ধে অচীরেই জেলা প্রশাসককে ভুমিকা রাখার অনুরোধ রাখেন।

বিশেষ করে ওই সংবাদটি রিয়াজ শরীফ নামে এক ব্যক্তি মন্তব্য তার জেলা প্রশাসককে অনুরোধ করেছেন, অনুগ্রহ করে এ ব্যাপারে কঠিন অ্যাকশনে যান। পুরো শহরে মাইকিং করে জানিয়ে দিন, যার দোকানে নকল ডিম পাওয়া যাবে তাকে তাৎক্ষণিক সাজা দিয়ে জেলে পাঠানো হবে। পাশাপাশি দোকানও বাজেয়াপ্ত করা হবে।’

পরদিন অভিযান চালিয়ে অন্তত ৫০ টি দোকান চিরতরে বন্ধ করে দিন। বাকিরা এমনিতেই ধোয়া তুলসি পাতা হয়ে যাবে।

এই মন্তব্যকারী আরও বলেছেন, এটা করতে আলাদা বাজেট-টেন্ডারের দরকার নেই। দরকার শুধু সদিচ্ছা। এমনিভাবে কয়েক হাজার ফেসবুক ব্যবহারকারী বরিশালটাইমসের সংবাদটিতে কমেন্ট করেছেন।

সেই সাথে বরিশালটাইমসকে সাধুবাদ জানিয়ে এ সংক্রান্ত আরও গঠনমূলক সংবাদ প্রকাশ করতে অনুরোধ করেন। আর এতেই নড়েচরে বসে বরিশাল জেলা প্রশাসন। বিশেষ করে স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান এ বিষয়ে বিন্দু পরিমান ছাড় দিতে নারাজ।

যে কারণে তিনি কালবিলম্ব না করে বৃহস্পতিবারই নিজেই নেমে গেলেন মাঠে। খোঁজ নিতে শুরু করেছেন এসব ডিমের প্রাপ্তিস্থান। এমনকি এ বিষয়ে তিনি নিশ্চিত হতে বরিশাল নগরীর বাজারগুলো মনিটরিংয়ের জন্য দায়িত্বও বন্টন করেছেন বলে জানা গেছে।’

লাইভ

টপ