• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

সানির পর নিষিদ্ধ হলেন তাসকিনও

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৯:০৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৯, ২০১৬

আরাফাত সানির পর টি২০ বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গেল বাংলাদেশের পেসার তাসকিন আহমেদেরও। ত্রুটিপূর্ণ বোলিং অ্যাকশনের জন্য ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি তাকে সাময়িক নিষিদ্ধ করেছে। তার পরিবর্তে টি২০ বিশ্বকাপ খেলতে ভারত যাবেন শুভাগত হোম। বিষয়টি বাংলামেইলকে নিশ্চিত করেছেন জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।

 

তবে শুভাগত হোম ভারতে কবে যাবেন, তা অবশ্য পরিষ্কার করে বলেননি বাশার। সব ঠিক করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। অন্যদিকে সানির পরিবর্তে বিশ্বকাপ খেলতে যাবেন সাকলাইন সজীব। এদিকে প্রথমে আসে আরাফাত সানির নিষেধাজ্ঞার খবর। তবে এই সময় আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমে বলা হয়, তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশন বৈধ। তিনি সবুজ সঙ্কেতই পেতে যাচ্ছেন।

কিন্তু বিকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে আরাফাত সানি এবং তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষার ফল জানিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে। যেখানে জানানো হয়েছে, বোলিং অ্যাকশনে ত্র“টি থাকায় সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে এ দু’জনকেই। আইসিসির নিয়মানুযায়ী একজন বোলার তার কনুই সর্বোচ্চ ১৫ ডিগ্রি পর্যন্ত বাঁকাতে পারবেন।

আরাফাত সানির অধিকাংশ বল করার সময়ই তার হাত ১৫ ডিগ্রির বেশি বেঁকে যায়। তবে তাসকিন আহমেদের কিছু অ্যাকশনের বল ১৫ ডিগ্রির বাইরে চলে যায়। আরাফাত সানির বোলিং নিয়ে কিছুটা সন্দেহ ছিল। তবে তাসকিনও সেই ফাঁদে পড়বে, এটা হয়তো ভাবেনি কেউ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে হলো তাকেও। অবশ্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের এই দুই ক্রিকেটার সাময়িক নিষিদ্ধ হলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে তারা খেলতে পারবে।  টি২০ বিশ্বকাপ মিশনেই আরাফাত সানি ও তাসকিনের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ ওঠে। সেটা বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে ম্যাচেই, গত ৯ মার্চ।

 

তখন আইসিসি থেকে বলা হয়, চেন্নাইয়ে সানি ও তাসকিনকে পরীক্ষা দিতে হবে। নিয়মানুযায়ী গত ১২ মার্চ আরাফাত সানি ও ১৫ মার্চ তাসকিন চেন্নাই গিয়ে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দেন। তাসকিনের সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশের বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিক। পরীক্ষা দেয়ার পর তাসকিন বেশ আত্ববিশ্বাসী ছিলেন নিজের ব্যাপারে।

 

সবুজ সঙ্কেতের অপেক্ষায় ছিলেন গুরু হিথ স্ট্রিকও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত হলো উল্টো। বাংলাদেশের ক্রিকেটে শুধু আরাফাত সানি ও তাসকিন আহমেদ সাময়িক নিষেধাজ্ঞার কবলে প্রথমবারের মতো পড়েননি। এর আগেও বোলিং অ্যাকশন অবৈধের অভিযোগে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন আব্দুর রাজ্জাক, সোহাগ গাজী, আল আমিন হোসেন। পরে তারা পরীক্ষা দিয়ে পুনরায় ফিরে এসেছিলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। এমন সুযোগ রয়েছে তাসকিন ও আরাফাত সানির সামনেও। এখন বিসিবির অধীনে বোলিং অ্যাকশন শুধরানোর পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হবে সানি ও তাসকিনকে। বোলিং অ্যাকশন শুদ্ধ করে পরবর্তীতে আইসিসির পরীক্ষাগারে যাবেন এই দুজন। সে ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোনো সময়সীমা নেই।

লাইভ

টপ