• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

শেবাচিম ডাক্তারের অপচিকিৎসায় স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৭:৩২ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৮, ২০১৬

বরিশাল: বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের চিকিৎসকের ভূলে বিথী আক্তার নামে এক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই চিকিৎসকের বিচার চেয়ে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে গ্রামবাসী।

সোমবার (১৮ এপ্রিল) সকালে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার দক্ষিণ সিডিখান গ্রামের পাঁচ শতাধিক বাসিন্দা নিহতের বাড়ির সামনে এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে। বিথী ওই গ্রামের বাদল সরদারের মেয়ে উপজেলার ক্রোকিরচর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

জানা গেছে, হাতে ও ঘাড়ে টিউমার অপারেশনের জন্য সম্প্রতি শেবাচিম হাসপাতালে যায় বিথী আক্তার। সেখানে কর্মরত চিকিৎসক শেবাচিমের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. হারুন-অর-রশিদ ২৫ হাজার টাকার চুক্তিতে শনিবার রাতে অপারেশন করাবেন বলে তার বাসায় নিয়ে যান।

সেখানে অপারেশনের সময় বিথীর মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পর নিহত বিথির লাশ তড়িঘড়ি করে অ্যাম্বুলেন্সে করে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

হাসপাতালে ভর্তি না করে চিকিৎসকের বাসায় নিয়ে যাওয়া ও ভূল চিকিৎসায় তার মৃত্যুর অভিযোগে চরম ক্ষোভ সঞ্চার হয় নিহতের পরিবার ও গ্রামবাসীর মধ্যে। তারা ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবিতে সোমবার সকালে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে।

নিহতের বাবা বাদল সরদার জানান, ভুল চিকিৎসার জন্যই বিথী মারা গেছে। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। যাতে আর কাউকে এভাবে ভুল চিকিৎসায় মারা যেতে না হয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত চিকিৎসক শেবাচিম হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. হারুন-অর-রশিদের মুঠোফোনে বারবার ফোন করা হলেও সেট বন্ধ পাওয়া যায়।’

লাইভ

 

টপ