• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

শিক্ষামন্ত্রীর তীক্ষ্ণ দৃষ্টি বরিশালে

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট১২:৪০ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০১৬

বরিশাল: এবারের এসএসসি পরীক্ষায় ভুল ফলাফল প্রকাশের কারণে সর্বজিত ঘোষ হৃদয় নামে এক মেধাবী ছাত্র আত্মহুতি দেয়ার খবরে খোদ শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এখন বরিশালে দৃষ্টি দিয়েছেন। এমনকি বাংলাদেশ সরকারের ক্লিন ইমেজের এই মন্ত্রী এ বিষয়টির নেপথ্য কারণ জানতে কয়েক দফা বোর্ড কর্মকর্তা চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হককে ফোনও করেছেন বলে জানা গেছে।

 

সর্বশেষ সোমবার বিকেলেও বিষয়টির তদন্ত অগ্রগতি সম্পর্কিত তথ্য-উপাত্ত জানাতে একবার ফোন করেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী। বোর্ড চেয়াম্যানের সাথে দীর্ঘক্ষণ আলাপকালে তিনি অতিদ্রুত বিষয়টির প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে প্রেরণের নির্দেশনা দিয়েছেন। এ তথ্য বরিশাল শিক্ষাবোর্ডের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র নিশ্চিত করেছে। তবে বোর্ড চেয়ারম্যানের দাবি, মন্ত্রী মহাদ্বয় নন, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল মহল একাধিকবার যোগাযোগ করেছিলো। এমনকি এখনও প্রতিনিয়ত কথা হচ্ছে। বোর্ডের প্রতিটি পদক্ষেপের খবর সার্বক্ষণিক তাদের অবহিত করা হচ্ছে।’

 

অথচ ওই সূত্রটি জোর দিয়ে বলছে, এসএসসি পরীক্ষায় ভুল ফলাফল প্রকাশের একদিন পরে তা সংশোধন করার পর থেকেই স্বংয় শিক্ষামন্ত্রী বরিশাল বোর্ডে তীক্ষœ দৃষ্টি রাখছে। এমনকি বরিশাল শিক্ষাবোর্ড সংশ্লিষ্ট কোন সংবাদ পত্রিকায় পেলে তার তথ্য-উপাত্ত নিশ্চিত হতে মন্ত্রী সময় বিশেষ ফোন করাচ্ছেন বা করছেন। তাছাড়া শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের দৃষ্টি যে বরিশালে পড়েছে পত্রিকা বা টিভি চ্যানেলে চোখ রাখলেই অনুমান করা যায়।

 

কারণ সোমবার (১৬ মে) সচিবালয়ে শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিকদের বরিশালের এসএসসি পরীক্ষার ভুল ফলাফল প্রকাশ করার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছেন। এবং সাংবাদিকদের নানামূখি প্রশ্নের উত্তরও দিয়েছে। মন্ত্রী বলেছেন, বরিশাল শিক্ষাবোর্ড কর্তৃপক্ষের ভুলে হিন্দুধর্মে ফেল খবর প্রকাশ হওয়ার কারণে যে অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। সেই ঘটনায় যে জড়িত হোক না কেন, তার বিরুদ্ধে যথাযথ আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

 

বরিশালের শিক্ষা বোর্ডের ভুলে শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা সম্পর্কে নাহিদ বলেন, এ বিষয়ে এরই মধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সেখানে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানসহ কর্মকর্তাদের কোন ধরনের অবহেলা বা ত্রুটি থাকলে তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে। সুতরাং বুঝতে আর অপেক্ষা থাকে না যে শিক্ষামন্ত্রী বরিশালে তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখছেন এবং প্রতিনিয়ত খোঁজ-খবর নিচ্ছেন।

লাইভ

টপ