• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

র‌্যাবের গুলিতে পঙ্গু লিমনের মায়ের ওপর হামলা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৭:৪৩ অপরাহ্ণ, মে ৩, ২০১৬

বরিশাল: র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) গুলিতে পঙ্গু ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার সাতুরিয়া গ্রামের লিমনের মা  হেনোয়ারা  বেগমের (৪৫) ওপর হামলা চালিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। গুরুতর আহত অবস্থায় পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। মঙ্গলবার  বেলা সাড়ে ১২টার সময় একটি  মেহগনি গাছ কাটা নিয়ে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, লিমনের বাবা তোফাজ্জেল  হোসেন এবং মা  হেনোয়ারা বেগম কাউখালীর বাসা থেকে রাজাপুরের সাতুরিয়া গ্রামের বাড়িতে যান। দুপুরে লিমনের মা কুড়াল দিয়ে ঘরের পাশের একটি  মেহেগনি গাছ কাটার সময় প্রতিবেশি ইব্রাহিম হাওলাদার ও তার চাচাতো ভাই মোস্তফা হাওলাদার লোকজন নিয়ে সেখানে উপস্থিত হন। লিমনের মায়ের হাত থেকে কুঠাল ছিনিয়ে নিয়ে তাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন তারা।’

লিমনের মা  হেনোয়ারা বেগম অভিযোগ করেন, র‌্যাব লিমনকে গুলি করার পর তার একটি পা পঙ্গু হয়ে যায়। এরপর আমরা র‌্যাবের স্থানীয়  সোর্সদের ভয়ে কাউখালী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন একটি ভাড়া করা বাসায় বসবাস করতে থাকি। ২০১২ সালের ২০ আগস্ট ঈদের দিন লিমন আমাদের সঙ্গে গ্রামের বাড়িতে গেলে র‌্যাবের  সোর্স ইব্রাহিম হাওলাদার ও তার সহযোগীরা তাকে মারধর করে।

এ ঘটনায় রাজাপুর থানায় মামলা করলে ইব্রাহিমকে ঝালকাঠির আদালত এক হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড  দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ইব্রাহিম এলাকায় লিমনকে ও তার পরিবারকে আসতে নিষেধ করেন। মঙ্গলবার দুপুরে গ্রামের বাড়িতে গেলে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এ ব্যাপারে ইব্রাহিম হাওলাদার বলেন, লিমনদের সঙ্গে আমাদের জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে আমার জমিতে লাগানো গাছ কাটার সময় লিমনের মায়ের হাত  থেকে কুঠাল কেড়ে নেয়া হয়েছে। এ সময় তার সঙ্গে একটু ঝগড়া হয়েছে।  কোনো মারধরের ঘটনা ঘটেনি।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  শেখ মুনীর উল গিয়াস বলেন, লিমনের মাকে মারধরের ঘটনায় এখনো অভিযোগ  দেননি তারা। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

ads

লাইভ

টপ