• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

মুলাদীতে মৎস্য অধিদপ্তর ও পুলিশের যৌথ অভিযানে জেলেদের হামলা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৬:১৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০১৭

বরিশালের মুলাদী উপজেলার জয়ন্তী নদীতে অভিযান চালাতে গিয়ে অভিযানিক দলের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। বেলা ১১টার দিকে মুলাদী উপজেলার ছবিপুর ইউনিয়নের ভেদুরিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে মৎস্য অধিদপ্তর পরিচালিত ওই অভিযানিক দলটির এক সদস্য গুরুতর আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেলেও বড় ধরনের কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

প্রতক্ষদর্শীরা জানান, জয়ন্তী নদীতে ট্রলার নিয়ে অভিযানে নামে মৎস্য অধিদপ্তর ও পুলিশ যৌথভাবে। অভিযানের একপর্যায়ে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ভেদুরিয়া এলাকায় অভিযানিক দলটি এসে পৌছালে তাতে জেলে পল্লী ও গ্রামবাসীরা মিলে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এতে অভিযানিক দলটিতে থাকা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এসএম জামান, থানা পুলিশের এএসআই বিল্লাল, কনস্টেবল নুরুজ্জামান, ট্রলার চালক রফিক, সুমনসহ সবাই কমবেশি আঘাতপ্রাপ্ত হন। অবস্থা বেগতিক দেখে অভিযানিক দলটি সেখানে থেকে চলে আসে।

হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, আইন-শৃঙ্খলা সভার জন্য তিনি বরিশালে ছিলেন। তবে মৎস্য অধিদপ্তরের নেতৃত্বে একটি অভিযানের অভিযানিক দলের ওপর হামলার ঘটনা শুনেছেন। এতে ওই দলের এক সদস্য আহত হয়েছেন। তিনি উপজেলায় পৌছে বিষয়টি নিয়ে জরুরী বৈঠকে বসবেন বলে জানান। এ বিষয়ে জেলা মৎস্য অফিসের কারো বক্তব্য না পাওয়া গেলেও মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) বিমল চন্দ্র দাস এ ধরনের হামলার একটি খবর শুনেছেন বলে জানান।

অপরদিকে মুলাদী থানার (ওসি) মতিউর রহমান জানিয়েছেন, বিষয়টি তেমন বড় কিছু নয়। ইটপাটকেল নিক্ষেপে ট্রলারে থাকা এক জেলে আহত হয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, মুলাদী উপজেলার ছবিপুর, চরখালেকা, বাটামারা, নাজিরপুর, গাছুয়া, মুলাদী সদর ও কাজিরচর এলাকার জয়ন্তী ও আড়িয়াল খাঁ নদীতে অবরোধের শুরু থেকেই প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় অসাধু জেলেরা ইলিশ শিকার করে আসছে।

লাইভ

টপ