• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

রাজাপুরে মাদরাসার ২০ ছাত্রের চুল কেটে দিল শিক্ষক

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৮:৩৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০১৬

ঝালকাঠি: রাজাপুরের বাগড়ি গ্রামের নূরানী কিন্ডার গার্ডেন মাদরাসা ও হিফজখানার দ্বিতীয় ও তৃতীয়  শ্রেণির ২০ ছাত্রের মাথার চুল কেটে দিয়েছে মো. রবিউল ইসলাম নামে ওই মাদরাসার এক শিক্ষক।

মঙ্গলবার দুপুরে ক্লাসরুমে ছাত্রদের মাথার টুপি খুলে কাঁচি দিয়ে মাথার চুল কেটে দেন ওই শিক্ষক। এ ঘটনায় অভিভাবকদের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

শিক্ষার্থীরা জানায়, গত কয়েক দিন ধরে শিক্ষক রবিউল ইসলাম দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রদের মাথার চুল কেটে আসতে বলেন। কিন্তু শিশু শিক্ষার্থীদের মাথার চুল ছোট হওয়ায় তারা চুল না কেটে মাদরাসায় আসে। শিক্ষক রবিউল ইসলাম মঙ্গলবার দুপুরে তাদের ক্লাসে দাঁড় করিয়ে কাঁচি দিয়ে তাদের মাথার চুল কেটে দেন। এ ঘটনা ওই শিক্ষার্থীরা বাড়িতে গিয়ে অভিভাবকদের কাছে বলে এবং অভিভাবকরা মাদরাসায় গিয়ে এ ঘটনার কারণ জানতে চান। এ ঘটনার পর শিক্ষক রবিউল ইসলাম পলাতক রয়েছেন।

এ ব্যাপারে শিক্ষক রবিউল ইসলাম বলেন, ‘দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রদের মাথার চুল বড় হয়ে যাওয়ায় তাদের চুল কেটে আসতে বললেও তারা সেটি না করায় কেচি দিয়ে প্রত্যেকের মাথায় একটি করে পোঁজ দিয়ে চুল কেটে দিয়েছি, যাতে বাড়িতে গিয়ে চুল কেটে মাদরাসায় আসে।’

মাদরাসার প্রধান শিক্ষক (বড় হুজুর) জয়নাল আবেদিন জানান, এ ঘটনা শুনে রবিউল ইসলামকে মাদরাসায় আসতে বলেছি ও গালমন্দ করেছি। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

লাইভ

টপ