• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

ভান্ডারিয়ায় মানবতাবিরোধী অপরাধের তদন্ত দল

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৮, ২০১৬

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার পশারিবুনিয়া গ্রামে ২৬ জন হিন্দুকে একসঙ্গে হত্যার ঘটনায় চারজন মানবতাবিরোধী অপরাধীর অপরাধ তদন্তে একটি দল অবস্থান করছে। চার সদস্যের ওই তদন্ত দলটি বৃহস্পতিবার ত্যাকাণ্ডের স্থান পরিদর্শন ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষ্য নিয়েছেন। তদন্ত দলের নেতৃত্বে রয়েছেন সহকারী পুলিশ সুপার সত্য রঞ্জন রায়। ২০১৫ সালের ১৪ অক্টোবর মুক্তিযোদ্ধা বিজয় কৃষ্ণ বালা বাদী হয়ে পিরোজপুর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম সত্যব্রত সিকদারের আদালতে চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

 

বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে পাঠান। এরপর ট্রাইব্যুনালের তদন্ত দল এ ঘটনা তদন্তে পিরোজপুর পৌঁছান। মামলার আসামিরা হলেন, উপজেলার পূর্ব পশারিবুনিয়া গ্রামের মৃত খবির উদ্দিনের ছেলে আমীর হোসেন ও ফজলুল হক, একই গ্রামের মৃত শামছুল হকের ছেলে নূরুল আমীন এবং মৃত আবুল হাসেমের ছেলে আব্দুল মন্নান। মামলার এজাহারে বলা হয়,  ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে আসামিরা মামলার বাদী বিজয় কৃষ্ণ বালার বাবা নিরোধ চন্দ্র বালাসহ একই বাড়ির ছয়জনসহ মোট ২৬ জনকে গুলি করে হত্যা করে।

 

 

১৯৭১ সালের ৯ কার্তিক ভোরে আসামিরা পূর্ব পশারিবুনিয়া গ্রামে বিজয় কৃষ্ণ বালার বাড়িতে গিয়ে তাকে ও তার বাবাসহ সাতজনকে ধরে নিয়ে যান। এরপর পূর্ব পশারিবুনিয়া গ্রামের বনমালী গাছারুর বাড়ির পুকুর পাড়ে নিয়ে এক দড়িতে বেঁধে দাঁড় করিয়ে গুলি করেন। গুলিবিদ্ধ হয়ে বিজয় কৃষ্ণ বালা বেঁচে গেলেও তার বাবা নিরোধ চন্দ্র বালা, ছোট ভাই রনজিৎ বালা, বোনের স্বামী সুকুমার মিস্ত্রী, প্রতিবেশী গঙ্গাচরণ হালদার, অমূল্য মিস্ত্রি, সমীর মিস্ত্রি শহীদ হন।

 

এছাড়া একই বছরের ২০ জ্যেষ্ঠ আসামিরা পূর্ব পশারিবুনিয়া গ্রামের উপেন্দ্র নাথ মিস্ত্রি, চিত্ত রঞ্জন বেপারি, সতীশ চন্দ্র বেপারি, শরৎ চন্দ্র মাঝি, প্রকাশ হালদারকে গুলি করে হত্যা করেন। আসামিরা বিভিন্ন সময় আরও ১৫ জনকে গুলি করে হত্যা করেন। আসামিরা হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িতে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ও নারীদের ধর্ষণ করেন। মামলার আসামিরা বর্তমানে পলাতক রয়েছেন। ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার তদন্ত কর্মকর্তা সহকারী পুলিশ সুপার সত্য রঞ্জন রায় বলেন, তদন্তে আমরা পশারিবুনিয়া গ্রামে ২৬ জনকে হত্যার তথ্য প্রমাণ পেয়েছি।

ads

লাইভ

টপ