• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook
সর্বশেষ :

ভাঙন আতঙ্কে দশমিনার ১৫ গ্রামের মানুষ

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট১:১৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৯, ২০১৬

দশমিনা (পটুয়াখালি):  বর্ষার আগমনে তেঁতুলিয়া, বুড়াগৌরাঙ্গ, সুতাবাড়ীয়া ও ডিগ্রি নদীর পানি বৃদ্ধির পাওয়ায় পটুয়াখালীর দশমিনায় নদী ভাঙন আতঙ্কে ৫ ইউনিয়নের ১৫টি গ্রামের মানুষ। ভাঙনের শুরুতেই ৬ কিলোমিটার বেড়ি বাঁধসহ প্রতি দিন শত একর ফসলি জমি নদী গর্ভে বিলীন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবের কারণে উপজেলার নদী তীরবর্তী এলাকায় নদীর ভাঙন অতিমাত্রায় বেড়ে গেছে। বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই উপকূলবর্তী এলাকায় তীব্র ভাঙন দেখা দিয়েছে।

উপজেলার  রণগোপালদী ইউনিয়নের উত্তর রণগোপালদী, চরঘুনি, পাতার চর, আলীপুর ইউনিয়নের আলীপুর, মধুপুর, চাঁদপুর, কোটখালী, সুতাবড়ীয়া, দশমিনা ইউনিয়নের হাজির কান্দা, বাঁশবাড়িয়া ইউনিয়নের, ঢনঢনিয়া, আমবাড়ীয়া, উত্তর বাঁশবাড়ীয়া, চরবোরহান ইউনিয়নের চরশাহজালালের পশ্চিম উত্তর অংশ, কালীর চর, চরহাদি গ্রামের মানুষ ভাঙন আতঙ্কে।

এছাড়াও উত্তর রণগোপালদী এলাকায় অর্ধ কিলোমিটার বেড়ি বাঁধ, আলীপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড নির্মিত ৫৫/২এ নম্বর পোল্ডারের প্রায় ৪ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ, উত্তর বাঁশবাড়ীয়া ও ঢনঢনিয়া এলাকার দেড় কিলোমিটার বেড়ি বাঁধ নদী ভাঙনে বিলীন হয়ে গেছে।

এলাকাবাসী আরও জানান, গত বছরের তুলনায় চলতি বছর নদীর ভাঙনের তীব্রতায় প্রতি দিন প্রায় শত একর ফসলি জমিসহ বেড়ি বাঁধ বিলীন হয়ে যাচ্ছে।’

লাইভ

টপ