• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন কাউখালীর শিক্ষার্থী সেই তাহমিনা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট১১:৩৯ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০১৭

পিরোজপুরের কাউখালীতে স্কুলছাত্রীর বাল্যবিবাহ বন্ধ করল সাহসী তাহমিনা। বহস্পতিবার (১৮ মে) উপজেলার কুমিয়ান গ্রামের দিনমজুর আবুল হোসেন মাঝির কাউখালী আদর্শ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনি পড়ুয়া মেয়ে সাবিনাকে (১৩) একই উপজেলার চিরাপাড়া গুচ্ছগ্রামের দিনমজুর জয়নালের ছেলে সাগর হোসেনের (১৭) বিয়ের প্রস্তুতি চলছিলো। খবর পেয়ে কেউন্দিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাহসী তাহমিনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামসুদ্দোহা চান, সামাজিক উদ্যোক্তা আব্দুল লতিফ খসরুকে নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে মেয়ের অভিভাবকদের বুঝিয়ে বাল্যবিবাহ বন্ধ করে দিয়ে শিশু সাবিনাকে রক্ষা করেন।’

এসময় বিবাহ আয়োজনের প্রস্তুতির সবকিছু ছিল ফেরত পাঠিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন সাহসী তাহমিনা।

বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পাওয়ার বিভিন্ন দিক নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে তাহমিনা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সাইকেলে ঘুরে ও স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় প্রচার প্রচারণার মাধ্যমে অনেক  বাল্য বিবাহ বন্ধ করে ইতিহাস সৃষ্টি করে।
ইতিমধ্যেই তার কার্যক্রম এলাকায় ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে বলে সুশিল সমাজ তাকে স্বাগত জানিয়েছে। বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পাওয়া সাবিনার লেখাপড়াসহ সকল দায়িত্ব নিয়েছেন শিক্ষানুরাগী আব্দুল লতিফ খসরু।

এ বিষয়ে আব্দুল লতিফ খসরু বরিশালটাইমসকে বলেন, তাহমিনা আজ জেলার (পিরোজপুর) গর্ব। যা অনেকে করতে পারেনি তা তাহমিনা পেরেছে। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে ও সচেতনতায় মেয়েটি যে ভুমিকা রাখছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে।”

ads

লাইভ

টপ