• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

বাবুগঞ্জে সিল মারা ব্যালট এবার বাগানে!

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৭:১৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ৩০, ২০১৬

বাবুগঞ্জে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ৯ দিন পরেও ভোটকেন্দ্রের পেছনের ডোবা-নালা, বাগান-জঙ্গল থেকে উদ্ধার হচ্ছে ব্যালট পেপার। উপজেলার চাঁদপাশা ইউনিয়নের মোহনগঞ্জ স্কুল এ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র থেকে এ পর্যন্ত ৩৩৪ পিস ব্যালট পেপার উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী ও র‌্যাব-৮’র সদস্যরা। গতকাল বুধবারও মোহনগঞ্জ কেন্দ্রের পেছনের বাগান থেকে প্রিসাইডিং অফিসারের স্বাক্ষর ও তালা প্রতীকে সিল মারা ৩৪টি ব্যালট উদ্ধার করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। এর আগেও ওই কেন্দ্র থেকে একইভাবে আস্ত মুড়িসহ ৩ বান্ডিল (৩০০ পিস) ব্যালট পেপার উদ্ধার করে র‌্যাব।

 

উদ্ধারকৃত মেম্বার প্রার্থীদের ওই ব্যালটে প্রিসাইডিং অফিসারের স্বাক্ষর ও কেন্দ্রের গোল সিল ছাড়াও ভোটার সিল দেওয়া ছিল। এদিকে মঙ্গলবারও একই ইউনিয়নের ঘটকের চর কেন্দ্রের পেছনের শুকিয়ে যাওয়া ডোবা থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় চেয়ারম্যান প্রার্থীর ৯৭টি ব্যালট পেপার উদ্ধার করে বিমানবন্দর থানা পুলিশ। বিভিন্ন স্থানে ব্যালট পাওয়া প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাচন অফিসার আবদুল হাই আল হাদী জানান, উপজেলার রহমতপুর ও চাঁদপাশা ইউনিয়নের কয়েকটি কেন্দ্রে ব্যাপক গোলযোগ ও ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

 

এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশকে অর্ধশতাধিক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও রাবার বুলেট ছুড়তে হয়। রহমতপুর ইউপির রামপট্টি ও চাঁদপাশার ভবানীপুর কেন্দ্রে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের কারণে ভোট গ্রহন স্থাগিত করে পুনরায় উপ-নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তাই ব্যালট পেপার পাওয়ার ঘটনা অস্বাভাবিক নয়। তবে প্রিসাইডিং অফিসারের স্বাক্ষর ও সিল সম্বলিত ব্যালট পেপার ব্যালট বাক্সের বদলে কেন্দ্রের পেছনের বাগানে-জঙ্গলে পেলে সেটা অবশ্যই অনাকাঙ্খিত ও দুঃখজনক বলে জানান তিনি।

 

 

এদিকে মোহনগঞ্জ স্কুল এ্যান্ড কলেজ থেকে ব্যালট উদ্ধারকালে তালা প্রতীকের প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মিরন ফকির অভিযোগ করেন, প্রতিদ্বন্দ্বী বিজয়ী আওয়ামী লীগের প্রার্থী কেন্দ্রে ঢুকে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে যান। এতে ডিউটিরত পুলিশের এসআই ফনিভূষণ গুরুতর আহত হন। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এদিকে এই সুযোগে তার লোকজন বুথে গিয়ে ব্যালট পেপার ছিনতাই করেন।

 

এসব অভিযোগ প্রসঙ্গে মোহনগঞ্জ স্কুল এ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং অফিসার দেহেরগতি ঈশ্বর নারায়ণ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শাহজাহান নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থীদের কিছু ব্যালট খোয়া যাওয়ার কথা স্বীকার করলেও তার সঠিক কোন সংখ্যা জানাতে পারেননি। ভোটকেন্দ্রে হামলা ও গোলযোগের কারণে প্রায় দেড় ঘন্টা ভোট বন্ধ ছিল বলে জানালেও তার স্বাক্ষর ও সিল মারা ব্যালট কিভাবে বাগানে গেল এ প্রশ্নের কোন সদুত্তর দিতে পারেননি প্রিসাইডিং অফিসার।

লাইভ

 

টপ