• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

বরিশালে ভোট কেন্দ্রে সংঘর্ষে শতাধিক আহত

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৭:০৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ২২, ২০১৬

বরিশাল: সংঘর্ষ, গুলি, ভোট কেন্দ্র স্থগিত, ভোট বর্জন এবং ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতির মধ্যদিয়ে জেলার দশ উপজেলার ৭৪টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। পৃথক হামলা ও সংঘর্ষে কমপক্ষে শতাধিক আহত হয়েছে।

 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলার উজিরপুর উপজেলার হারতা ইউনিয়নের জামবাড়ি এলাকায় মঙ্গলবার সকাল ১০টায় আ’লীগ মনোনীত সমর্থকদের ৫টি মোটরসাইকেল ভাংচুর করেছে ওয়ার্কাস পার্টির মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকেরা। এসময় ১৫জন আহত হয়। বানারীপাড়া উপজেলার পূর্ব সৈয়দকাঠী  সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থীর সমর্থকেরা ব্যালেট বাক্স ছিনতাই করতে চাইলে পুলিশ দুই রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নেয়।

 

সদর উপজেলার চন্দ্রমোহন ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ভেদুরিয়া গ্রামে সাধারণ ইউপি সদস্য প্রার্থী দুলাল বেপারী ও দলিল উদ্দিনের সমর্থকদের সাথে সংঘর্ষে ২০জন আহত হয়। মুলাদীর কাজীরচর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড বাহাদুরপুর গ্রামে সাধারণ ইউপি সদস্য প্রার্থী কাওসার প্যাদা ও হানিফ সরদারের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে নারীসহ ২৫জন আহত হয়েছে। গৌরনদীর মাহিলাড়া ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড শরিফাবাদ কেবলারভিটা গ্রামে সাধারণ ইউপি সদস্য প্রার্থী হারুন-অর রশিদের সমর্থকেরা অপর প্রার্থী মিন্টু সিকদারের সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। এতে ৫জন আহত হয়। বার্থী ইউনিয়নের সংরক্ষিত ১নং ওয়ার্ডের প্রার্থী শিপ্রারানী দত্তর সমর্থকদের ওপর হামলা চালায় প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী রানু বেগমের সমর্থকেরা।

 

এতে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। একই ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সাধারণ ইউপি সদস্য প্রার্থী খায়রুল আহসান খোকনের সমর্থকদের সাথে অপর প্রার্থী সোবাহান হাওলাদারের সমর্থকদের সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়েছে। বাবুগঞ্জের আগরপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের বাহ্ম্রনদিয়া গ্রামে সাধারণ ইউপি সদস্য প্রার্থী আব্দুর রব বেপারীর সমর্থকদের সাথে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী বাবুল বেপারীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ১৫জন আহত হয়। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল হালিম খান বলেন্, দু’একটি বিছিন্ন ঘটনা ছাড়া উৎসব মূখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

লাইভ

টপ