• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

বরিশালে নারী কাউন্সিলরকে পেটালেন আ’লীগ নেতা মনির মোল্লা!

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৮:০০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৭

বরিশাল নগরীতে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরকে শারীরিক লাঞ্ছিত ও মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে। বুধবার বিকেলে নগরীর এ. ওয়াহেদ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে স্মার্টকার্ড বিতরণকালে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার সেলিনা বেগম বরিশাল নগরীর ২৪, ২৫ ও ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ও মহানগর মহিলা দলের নেত্রী। এছাড়া তিনি ২৪ নম্বর ওয়ার্ড মহিলা দলের সভানেত্রী বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলর সেলিনা বেগমের অভিযোগ- তিনি নির্বাচনী এলাকা ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে ভোটারদের সুবিধার্থে স্মার্টকার্ড বিতরণে সহযোগিতা করছিলেন। এ সময় মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনির মোল্লা তাকে স্মার্টকার্ড বিতরণ কক্ষ থেকে টেনে-হিঁচড়ে মাঠের মধ্যে নিয়ে আসেন। ওই সময় মনির মোল্লার সমার্থকরা তাকে গালাগালির একপর্যায় কিল-ঘুষি মারেন।

সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে থাকা ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও মহানগর বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. জিয়াউদ্দিন শিকদার বরিশালটাইমসকে জানান, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর সেলিনা বেগম শারীরিক নির্যাতন হয়েছেন বিষয়টি তাকে জানিয়েছেন। নির্বাচন কমিশন থেকে নির্দেশনা আছে ওয়ার্ড কাউন্সিলর হিসেবে সেলিনা বেগম তার নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের সহযোগিতা করতে পারবেন। সেখানে তাকে বাধাঁ দেওয়া বা মারধর করা উচিত হয়নি।

তবে সকল অভিযোগ অস্বীকার করে মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনির মোল্লা বলছেন, সেলিনা বেগম অন্যায়ভাবে ভোটারদের লাইনের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে তার সর্মকদের ভিন্ন লাইন দাড় করানোর চেষ্টা করছিলেন। এসময় সাধারণ জনতা তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়। ওই সময় তাকে উদ্ধার করে সেখান থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে মাত্র। তবে লাঞ্ছিত কিংবা মারধরের ঘটনা মিথ্যা অভিযোগ বলে দাবি করেন তিনি।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে কোতয়ালি থানার এসআই সমিরণ মন্ডল বরিশালটাইমসকে জানান, এখানে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। তবে বিষয়টি নিয়ে উত্তেজনা বিরজ করলে পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করে।’

লাইভ

টপ