• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

বরিশালে চলন্ত বাসে দু’ বোনকে গণধর্ষণ, ৫ আসাসির বিরুদ্ধে চার্জশিট

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট১০:২১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০১৬

বরিশাল: বরিশাল নগরীতে চলন্ত বাসে দুই বোনকে গণধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। রোববার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জিআরও শাখায় অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি/তদন্ত) মো. মাহাবুব আলম।’

চার্জশিটে বিমানবন্দর থানাধীন কলস গ্রামের মো. রশিদ মৃধার ছেলে মো. রানা মৃধা, মো. রশিদ বিশ্বাসের ছেলে মো. তারেক হোসেন, মৃত গোষাই চন্দ্র দাসের পুত্র দেবাশীষ চন্দ্র দাস, গড়িয়ারপাড় এলাকার শঙ্কর কুমার মিত্রের ছেলে সুজন কুমার মিত্র, কলাডোমা এলাকার মৃত মোক্তার চাপরাশির ছেলে মো. নাসির চাপরাশিকে অভিযুক্ত করা হয়।

এ মামলার এজাহারনামীয় আরেক আসামি মো. মিজানুরের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগের প্রমাণ না পাওয়ায় তাকে চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গৌরনদীর ভুরঘাটা এলাকার মো. মেহেদী হাসান, তার স্ত্রী ও শ্যালিকা (১৮) গত ২২ জানুয়ারী সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটা ভ্রমণ শেষে বরিশাল ফিরছিলেন। ওই রাত বাসের ৫ স্টাফ মো. মেহেদী হাসানকে গামছা দিয়ে বেঁধে তার স্ত্রী ও শ্যালিকাকে গণধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় ১৬ মার্চ মেহেদী বাদী হয়ে ৬ জনকে অভিযুক্ত করে বিমানবন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই দিনই পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৫ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে। পরবর্তীতে অভিযুক্ত ৫ জনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারক তাদের ২২ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী নিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করে। বর্তমানে তারা জেল হাজতে রয়েছে।

লাইভ

টপ