• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

বরিশালের চরআবদানীতে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৯:২৬ অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০১৬

বরিশাল সদর উপজেলার চরবাড়িয়া ইউনিয়নে জমি সংক্রান্ত বিরোধীয় জেরে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসী হামলায় গৃহবধূসহ অন্তত ৩জন আহত হয়েছেন। রক্তাক্ত জখম অবস্থায় ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটছে গতকাল শুক্রবার ওই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের চরআবদানী এলাকায়।

খবর পেয়ে সংশ্লিষ্ট বরিশাল মেট্রোপলিটন কাউনিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। কিন্তু হামলাকারীদের কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। আহত গৃহবধূ শাহানারা বেগম ওই এলাকার সোমেদ আলীর স্ত্রী।’

স্থানীয়রা জানায়, একটি বিরোধপূর্ণ সম্পত্তি নিয়ে শাহানারা বেগম এবং প্রতিপক্ষ লিয়াকত আলীর পরিবারের দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো। সেই বিরোধ মিমাংসার উদ্যোগ হিসেবে শুক্রবার গণমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে জমিটি মাপার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কিন্তু প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক লিয়াকত আলীর পরিবার এ মিমাংসায় না গিয়ে জোরপূর্বক জমিটি ভোগ দখলের পায়তারা চালানোর কৌশল নেয়।

এতে ক্ষুব্ধ হয়ে শাহানার বেগম তাদের ডাকাডাকি করতে গেলে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতে তার ওপর হামলা চালানো হয়। সেই হামলায় লিয়াকত আলীর ছেলে আলী হোসেন, আমির হোসেন এবং স্ত্রী মালেকা বানুসহ ৫ জন অংশ নেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পুরো পরিবার একত্রিত হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে শাহানারা বেগমকে এলোপাতারি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। এসময় তার স্বামী সোমেদ আলী প্রতিরোধে এগিয়ে গেলে তাকেও পিটিয়ে আহত করা হয়। গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা শাহানারা বেগমকে উদ্ধার করে শেবাচিমে নিয়ে যায়।

ডাক্তাররা জানিয়েছেন, শাহানারা বেগমের শরীরের একাধিক স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। এছাড়া মাথায় একটি কোপ দেয়া হয়েছে, যেখানে ১৫টি সেলাই লেগেছে। তবে তিনি এখনও আশঙ্কামুক্ত নন।

শাহানারার স্বামী জানিয়েছেন, জমিটির বিরোধ মিমাংসায় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে একাধিকবার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। কিন্তু লিয়াকত আলী পরিবার কোন ধরনের শালিস মিমাংসায় না গিয়ে জমিটি জোরপূর্বক ভোগ দখলের চেষ্টা চালায়। তবে শুক্রবার জমিটি পরিমাপ করার ব্যাপারে তাদের সমর্থন ছিলো। কিন্তু স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে পরিস্থিতি জমিটি তাদের দখলমুক্ত হওয়ার ক্ষেত্রফল তৈরি হওয়ায় সন্ত্রাসী হামলা চালায়। যে কারণে তার স্ত্রী শাহানারা বেগমকে কুপিয়ে হত্যারও চেষ্টা চালানো হয়। এ ঘটনায় মেট্রোপলিটন কাউনিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

কাউনিয়া থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা অভিযোগটি শুক্রবার রাতে এজাহার হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে। এর আগে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশের একাধিক টিম মাঠে নামিয়ে দেয়া হয়েছে। কিন্তু ঘটনার পরপরই তারা গাঢাকা দেয়ায় গ্রেপ্তারের সফলতা আসছে না ।’

লাইভ

টপ