• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

পিরোজপুরে সম্পত্তির লোভে শিশু সন্তানকে খুন, সৎ মা গ্রেপ্তার

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট১২:৩২ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৭

পিরোজপুরে নিখোঁজের দুই দিন পর পুকুর থেকে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত রোববার শহরের মধ্যরাস্তা এলাকার চটপটি বিক্রেতা জাহিদুল ইসলামের দেড় বছরের কন্যা ঝুমুর আক্তারের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এই ঘটনায় নিজ স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ঘাতক সৎ মা জাহিদুলের বড় স্ত্রী মনি বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

পরিবার সূত্রে জানা গছে- গত শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে ঝুমুরকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। রাতে অনেক খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি ডায়েরি করা হয়।

পরে রোববার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে স্থানীয় লোকজন বাসার কাছে একটি পুকুরে ঝুমুরের লাশ ভাসতে দেখে থানা পুলিশকে খবর দেয়।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। এসময় স্থানীয় লোকজনের কথোপোকথনে সন্দেহ হওয়ায় পুলিশ জাহিদসহ জাহিদের দুই স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যায়।

পিরোজপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুমুর রহমান বিশ্বাস বরিশালটাইমসকে জানান, থানায় জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায় জাহিদুলের প্রথম স্ত্রী মনি বেগম ঝুমুরকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করে।

তিনি জানান, স্বামীর সম্পদের অংশীদার হবে এই আশঙ্কায় অনেকদিন ধরেই মনি বেগম ঝুমুরকে হত্যার পরিকল্পনা করছিলো। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঝুমুরের সৎ মা মনি বেগমের ঘরে টিভি দেখছিল।

ওই সময় মনি বেগম ঝুমুরকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেয়। পুলিশ ঘাতক সৎ মা মনি বেগমকে আটক করেছে।”

লাইভ

টপ