• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

পিরোজপুরে মসজিদে ঢুকে চাচা-ভাতিজাকে কুপিয়ে জখম

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৬:১৬ অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০১৬

পিরোজপুর সদরে পূর্ব শত্রুতার জেরে মসজিদে ঢুকে চাচা বাচ্চু সিকদার (৫০) এবং ভাতিজা নাজমুল হুদা মামুনকে (২৮) কুপিয়ে জখম করেছে জুয়ারীরা।

উপজেলার ভাইজোড়া গ্রামের সিকদার বাড়ির বায়তুন জামে মসজিদে বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মামলার পর দু’জনকে গ্রেপ্তার করছে পুলিশ।

বাচ্চু সিকদারের বড় ভাই আলমগীর সিকদার জানান, বৃহস্পতিবার সকালে একই এলাকার রাসেল নামে এক যুবককে জুয়া খেলতে নিষেধ করেন মামুন সিকদার। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

এর জের ধরে রাত ৮টার দিকে রাসেল ১০ থেকে ১২ জন লোক নিয়ে মামুন সিকদারের ওপর হামলা চালায়। মামুন মসজিদে আশ্রয় নিলে তারা সেখানে গিয়ে তাকে কুপিয়ে জখম করে। মামুনকে বাঁচাতে গেলে তার চাচা বাচ্চু সিকদারকেও কুপিয়ে জখম করা হয়।’

মসজিদের ইমাম মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার রাতে এশার নামাজ পড়ার জন্য মুসল্লীরা মসজিদে সমবেত হন। এ সময় মামুন দৌড়ে এসে মসজিদে আশ্রয় নিলে ১০ থেকে ১২ জন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে জখম করেন।

এ ছাড়া মামুনের চাচা বাচ্চুকেও কুপিয়ে জখম করা হয়। এতে মসজিদের মেঝে রক্তাক্ত হয়ে যায়। ভয়ে মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মুসল্লীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হলে সবাই এদিক ওদিক ছোটাছুটি শুরু করেন।

খবর পেয়ে আহতদের স্বজনরা মসজিদে এসে তাদের উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক অনিক দেউরী জানান, বাচ্চু সিকদারের মাথায় কুপিয়ে জখম করা হয় এবং ধারালো অস্ত্রের আঘাতে কানের এক অংশ কেটে গেছে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাসুদুজ্জামান জানান, টাকা দিয়ে তাস খেলায় বাধা দেওয়ায় এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলাকারীরা মসজিদে ঢুকে দু’জনকে কুপিয়ে জখম করেছে। এ ঘটনায় আহত বাচ্চু সিকদারের ভাই আলমগীর সিকদার বাদী হয়ে রাতেই একটি মামলা করেছেন। পুলিশ সোহেল (২৮) ও জালাল (২৫) নামে দু’জনকে গ্রেফতার করেছে।

লাইভ

টপ