• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

নব্য উপনিবেশবাদের বাধা পেড়িয়ে এগিয়ে প্রত্যাশিত পদ্মাসেতু

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৬:০৩ অপরাহ্ণ, মে ৭, ২০১৬

যতদিন রবে পদ্মা,মেঘনা,যমুনা বহমান ততদিন রবে কৃতী তোমার শেখ মুজিবর রহমান”, বিশ্বমানচিত্রে আফ্রিকা মহাদেশে ৫৪টি স্বাধীন রাষ্ট্রের অবস্থান সর্বশেষ দক্ষিণ সুদান এর এশিয়া মহাদেশের দিকে যদি তাকাই, তাহলে স্বধীনতা অর্জনের চিত্রটি অভিন্নরুপ চোখে পরবে যেমন ইন্দোনেশিয়া-১৯৪৫, লাওস-১৯৪৯, মালয়েশিয়া-১৯৫৭, মিয়ানমার-১৯৪৮, ভুটান-১৯৪৯,ফিলিপাইন-১৯৪৬, শ্রীলংকা-১৯৪৮, ভারত-১৯৪৭, ওমান-১৯৫১, কুয়েত-১৯৬১, সিরিয়া-১৯৪৬, জর্ডান-১৯৪৬ এভাবে কোন, কোন দেশ স্বধীনতা আন্দোলন শুরু হয়ে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পর্যন্ত লেগেছিল।

 

আর আমার প্রিয় বাংলাদেশেরর১৯৭১ সালে নয় মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে ৩০ লক্ষ সহিদের এবং ২লক্ষ মা বোনদের ইজ্জতের বিনেময়ে আর্জত হয়েছিল এইvস্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসাবে কিন্তু উপনিবেশবাদের থাবায় ১৯৭৫ সালের ১৫ ই আগষ্টে জাতির পিতা ও তার স্বপরিবারকে হত্যার মাধ্যমে রচিত হয়েছিল ইন্ডেমেনিটি কু আইন যার প্রবক্তা খুনি জিয়াই আত্নস্বীকৃতি খুনিদের রাষ্ট্রদূত বানিয়ে বিভিন্ন দেশে পূর্নবাসন করেছিলেন। কিন্তু আমার নেত্রীর অসীম সহসীকতার কারনেই ওই খুনিদের কেউ রক্ষা করতে পারে নায়।

 

আজ আমার দেশে আজো কেন নব্য উপনিবেশবাদ সৃষ্টকারী প্রতিষ্ঠানের থাবায়? যে প্রতিষ্ঠান সবসময় একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের উপর রাজনৈতিক,অর্থনৈতিক এবং শীক্ষা ও সাংস্কৃতিক নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা চালায়,সেই প্রতিষ্ঠান পদ্মাসেতু নির্মানে ঋন দেবে না সেটা তো আমাদের মতো সম্ভাবনাময় দেশের জন্য মহা আর্শবাদ।

 

পদ্মা সেতু নির্মানে আমার নেত্রী যে সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে তা বিশ্ব ইতিহাসে স্বর্নাক্ষরে লেখা থাকবে এবং তা জাতির জনকের কন্যার পক্ষেই তা সম্ভব।আমি আশাবাদী ২০২১ সালের মধ্যেই জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটি মধ্যম আয়ের দেশে হিসাবে বিশ্বমানচিত্রে যোগ হবে।বিশ্বব্যাংকঋন ফিরিয়ে নেওয়াকে চ্যালেন্জ হিসাবে গ্রহন করে শুধু সরকারকে নয়,প্রত্যেকটি নাগরিকদের এগিয়ে আসা উচিৎ যা আমাদের ১৬কোটি মানুষের নিদৃষ্ট স্বাধীন ভুখন্ডের এবং সরকারের ও সার্বভৌমত্বের মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখবে বলে আমি মনে, প্রানে বিশ্বাস করি।

 

 লেখক : মো. নজরুল ইসলাম খান আলীম

লাইভ

টপ