• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

তালতলীতে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবক নিহত

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৬:৩৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ৩১, ২০১৬

তালতলী: পূর্ব শত্র“তার জের ধরে প্রতিপক্ষরা মাইনুদ্দিনকে হত্যা ও টাকা লুন্ঠনের উদ্দেশ্যে কুপিয়ে পিটিয়ে অজ্ঞান করে নদীতে ফেলে দিয়েছে। অপর ভাই সুমনকেও কুপিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে টাকা লুট করে পালিয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় এদেরকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

 

অবশেষে মাইনুদ্দিন বুধবার গভীর রাতে মারা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার (২৫ মার্চ) তালতলী উপজেলার নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নের অংকুজানপাড়া গ্রামে। জানা গেছে, ওই গ্রামের ছিদ্দিক গাজী গং এর সাথে দীর্ঘদিন ধরে মাইনুদ্দিন (২৭) এবং তার খালাতো ভাই সুমনের বিরোধ চলে আসছে। ঘটনার দিন সুমনের মায়ের বিদেশ থেকে পাঠানো ৩৮ হাজার টাকার খবর পেয়ে ছিদ্দিক গাজীর পুত্র হিরু গাজীর নেতৃত্বে প্রতিপক্ষরা এসে মাইনুদ্দিনকে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে ও রড দিয়ে পিটিয়ে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞান করে পাশের নদীর চরে ফেলে দেয়।

 

মাইনুদ্দিনের কাছেই থাকা ছোট খালাতো ভাই সুমনকেও কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর যখম করে বাড়িতে থাকা ৩৮ হাজার টাকা পতিপক্ষরা নিয়ে যায়। এতে ৪জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে মাইনুদ্দিন এবং সুমনকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাইনুদ্দিন বুধবার গভীর রাতে মারা যায়। সুমন হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এব্যপারে থানায় মামলা হয়েছে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল আখতার জানান, মারামারির ঘটনা ঘটেছে, তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। তখন কেউ মামলা দেয়নি। মাইনুদ্দিন মারা যাওয়ার পরপরই মাইনুদ্দিনের বাবা ছোবাহান গাজী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছে। রাতেই পুলিশ  দু’আসামীকে গ্রেফতার করেছে।’

লাইভ

টপ