• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

ঝালকাঠির সাংসদ হারুনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ১৩ জুলাই

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৫:৪৫ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০১৭

কোটি টাকার চেক প্রতারণার মামলায় ঝালকাঠি-১ আসনের সাংসদ বজলুল হক হারুনের (বিএইচ হারুন) বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের জন্য আগামী ১৩ জুলাই দিনক্ষণ নির্ধারণ করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (১৮ মে) ঢাকার ১০ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক জালাল আহমেদের আদালতে অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য ছিল।

কিন্তু বজলুল হক হারুন বৃহস্পতিবার  আদালতে হাজির না হয়ে তার আইনজীবীর মাধ্যমে সময়ের আবেদন করেন। বিচারক সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে আগামী ১৩ জুলাই উচ্চ আদালতের আদেশ দাখিলের ব্যর্থতায় অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য করেন।’

মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী শওকত হোসেন মিয়া মিডিয়াকর্মীদের জানান, বৃহস্পতিবার মামলাটিতে অভিযোগ গঠনের জন্য দিনক্ষণ ধার্য ছিল। কিন্তু বিবাদী সময়ের আবেদন করলে বিচারক তা মঞ্জুর করেন। তিনি বলেন, ‘বিবাদী বজলুল হক হারুনের বিরুদ্ধে আরও দুটি দুই কোটির টাকার চেকের মামলা আছে।

ওই মামলায় আদালতে তার হাজিরের জন্য দিন ধার্য রয়েছে।’

মামলার নথি থেকে জানা যায়- গত বছরের ২২ আগস্ট জাতীয় পার্টির (জেপি) কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান খলিল ঢাকার সিএমএম আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

খোঁজ-খবর নিয়ে জানা গেছে- বাদী খলিলুর রহমানের কাছ থেকে ব্যবসায়িক প্রয়োজনে ধার হিসেবে সংসদ সদস্য বজলুল হক হারুন বিভিন্ন সময়ে পাঁচ কোটি টাকা নেন। পরবর্তীতে বিবাদী সে টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য বাদীকে ন্যাশনাল ব্যাংকের এক কোটি টাকার চেক দেন। সেই চেকের টাকা নগদায়নের জন্য বাদী ব্যাংকে উপস্থাপন করলে ব্যাংক তা অপর্যাপ্ত তহবিল মর্মে ফেরত দেয়।

পরবর্তীতে বাদী আইনজীবীর মাধ্যমে টাকা পরিশোধের জন্য বিবাদীকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠান। কিন্তু টাকা পরিশোধ না করায় বাদী ঢাকার সিএমএম আদালতে মামলা দায়ের করেন।

প্রসঙ্গত- বনানীতে রেইনট্রি হোটেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও মালিক আদনান হারুনের বাবা সংসদ সদস্য বজলুল হক হারুন। সম্প্রতি রেইনট্রি হোটেলে দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

এরপর ওই হোটেলে শুল্ক গোয়েন্দা কর্তৃপক্ষ অভিযান চালিয়ে দশ বোতল অবৈধ মদ উদ্ধার করে।”

লাইভ

টপ