• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

ঝালকাঠিতে শিশু নির্যাতনের প্রতিবাদে আন্দোলন

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৭:৪২ অপরাহ্ণ, মে ২০, ২০১৭

ঝালকাঠিতে চুরির অপবাদ দিয়ে দশ বছরের এক শিশুকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্মম নির্যাতনের পর এবার মামলার আসামীদের লোক শিশুর পরিবারকে গ্রামছাড়া করার হুমকি দিচ্ছে। মামলা দিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে অসহায় দরিদ্র পরিবারটি। মোট ৯ আসামীর দুজন গ্রেপ্তার হলে প্রধান আসামীসহ অন্যরা এখনও পলাতক। তবে পুলিশ বলছে সব আসমীকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

ঝালকাঠি জেলা সদরের আলিপুর গ্রামের দশ বছরের শিশুর সাগর হাওলাদারকে স্থানীয় মসজিদ ঈমামের ২ হাজার টাকা চুরিরর অপবাদ দিয়ে গত ১৪ মে সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত বস্তায় ঢুকিয়ে নির্মম নির্যাতন করে এলাকার একটি প্রভাবশালী মহল। পিটিয়ে পা ভেঙে দিয়েই নির্যাতনকারীরা ক্ষ্যান্ত হয় নি। অভিযোগ রয়েছে শিশুটির দুই হাতে সুই ঢুকিয়ে এবং কাঁটা ফুড়েও নির্যাতন করা হয়। পরে শিশুটিকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করার খবর পেয়ে সাংবাদিকরা খবর সংগ্রহে ছুটে যায়।

আর এরপর পুলিশ এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুই জনকে আটক করে শিশুর পরিবারকে ডেকে নিয়ে মামলা নেয় গতকাল শুক্রবার বিকেলে। মামলায় মোট ৯ জনকে আসামী করা হলেও এখনও প্রধান আসামী আতাহার আলীসহ অন্যরা ধরা পড়েনি। কিন্তু আসামীদের লোকজন মামলা দেয়ায় নির্যাতিত শিশুর পরিবাররকে গ্রামছাড়া করার হুমকি দিচ্ছে।’’

এখন এই হত দরিদ্র পরিবারটি চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। এদিকে শনিবার সকালে টেলিভিশনের ক্যামেরা ওই গ্রামটিতে পৌছালে লোকজন এবং সাগরের স্কুলের শিক্ষকরা প্রভাবশালীদের ভয়ে কথা বলতে অসম্মতি জানায়। কিন্তু সাগরের সহপাঠিরা সাংবাদিকদের দেখেই ছুটে এসে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ করে। তারা এ নৃশংস ঘটনার বিচার দাবী করে।

বাঁধা থাকলেও শিশুদের মধ্যে অনেকেই নির্মম নির্যাতনের কথা তুলে ধরে বিচার চায় নির্যাতিত শিশু সাগরের মা রাশিদা বেগম, বোন রাবেয়া আক্তার, বড় ভাই মো. হানিফ হাওলাদার এবং এলাকাবাসী ও সাগরের সহপাঠিরা ।

তবে পুলিশ বলছে- খুব দ্রুত মামলার প্রধান আসামীসহ সব আসামীদের গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হবে।”

লাইভ

 

টপ