• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

এবার মুক্তিযোদ্ধাদের কটুক্তি করে বিপাকে উজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান

জহির খান৬:০৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০১৭

বহু বিতর্ক জন্ম দেয়া বরিশালের উজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান ইকবালের বিরুদ্ধে এবার মুক্তিযোদ্ধাদের অসম্মান ও কটুক্তি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) উজিরপুর উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে মহান বিজয় দিবস পালনের প্রস্তুতি সভায় তিনি এ কটুক্তিমূলক কথা বলে নয়া বিতর্কের জন্ম দেয়।

জানা গেছে, ওই সভায় মহান বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধাদের দিয়ে কুচকাওয়াজের দাবী করেন উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল।

এ দাবীর প্রতিবাদ করলে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার হারন-অর রশিদের সাথে তার প্রকাশ্যে বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এস এম জামাল হোসেন উভয়কে নিবৃত্ত¡ করেন।

এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধাদেরকে কটুক্তি ও চরমভাবে অপমানিত করা হয়েছে বলে একাধিক মুক্তিযোদ্ধারা দাবী করেছেন। তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল এমন আচরন করে শুধু মুক্তিযোদ্ধা নয় মুক্তিযুদ্ধকেও অপমানিত করেছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার হারুন-অর-রশিদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিজয় দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবারের ওই প্রস্তুতি সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল সকলের সম্মুখে মুক্তিযোদ্ধাদের কটুক্তি করে ১৬ই ডিসেম্বর তাদেরকে (মুক্তিযোদ্ধা) দিয়ে কুচকাওয়াজ করতে হবে বলে দাবী করেন।

এ সময় আমি তার অন্যায়মূলক দাবীর প্রতিবাদ করায় সে আমার সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। তবে আমি প্রকাশ্যে তাকে জানিয়েছি মুক্তিযোদ্ধার অধিকাংশই এখন বয়বৃদ্ধ। তাদের দ্বারা কুচকাওয়াজ সম্ভব নয়।

আমার কথায় কোন কর্নপাত না করে তিনি ( উপজেলা চেয়ারম্যান ) ক্ষিপ্ত হয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের টেনিং হিসেবে কুচকাওয়াজ দেখা ও সেল্যুট নেয়ার খায়েশ প্রকাশ করেন। তার এ আচরন মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি অসম্মান ও চরম কটুক্তির জানান দেয়।

তিনি ক্ষোভের সাথে সংবাদকর্মীদের আরও জানিয়েছেন, গায়ের রক্ত দিয়ে দেশ স্বাধীন করে সেই স্বাধীন দেশের মাটিতে আবার একজন উপজেলা চেয়ারম্যানকে কুচকাওয়াজ করে দেখাতে হবে বৃদ্ধ মুক্তিযোদ্ধাদের এটা কেমন দাবী তা আমার জানা নেই।

এ বিষয়ে উজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান ইকবালের সাথে কথা বলতে তার মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

লাইভ

টপ