• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

এবার উজিরপুরের মৃত ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ব্র্যাক ব্যাংকের মামলা

জহির খান১১:১৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০১৮

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর বন্দরের মৃত ব্যবসায়ী জালাল আহম্মেদ’র বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছে ব্র্যাক ব্যাংক। পাশাপাশি ওই মৃত ব্যবসায়ীর বৃদ্ধা মা নুরজাহান বেগমকেও হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মৃত ব্যবসায়ি জালাল উপজেলার জয়শ্রী গ্রামের সেকান্দার হাওলাদারের ছেলে।

জানা গেছে, উপজেলার শিকারপুর বন্দরের ব্যবসায়ী জালাল আহম্মেদ ২০১১ সালের ৭ এপ্রিল উজিরপুর ব্র্যাক ব্যাংক থেকে চার লক্ষ টাকা ঋণ গ্রহন করে। সেই নিয়মিতভাবে কিস্তি পরিশোধ করা অবস্থায় ২০১২ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি হঠাৎ মৃত্যুবরন করে ব্যবসায়ি জালাল।

এরপর মৃত জালালের পরিবার তার মারা যাওয়ার সংবাদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি উজিরপুর ব্র্যাক ব্যাংক কর্তৃপক্ষের নিকট জমা দেয়। সে সময় জালালের পরিবারকে ব্র্যাক ব্যাংক থেকে ইনস্যুরেন্স বাবদ নগদ অর্থ দেওয়ার মৌখিকভাবে আস্বস্ত করেন ব্র্যাক ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

কিন্তু অজ্ঞাত কারনে হঠাৎ কিছুদিন পরেই মৃত জালাল আহম্মেদের পরিবারকে ঋনের টাকা পরিশোধের আদালতের মাধ্যমে উকিল নোটিশ পাঠায় ব্র্যাক ব্যাংক।

এক পর্যায়ে বরিশাল যুগ্ম জেলা জজ ১ম ও অর্থ ঋণ আদালতে ব্র্যাক ব্যাংকের এসোসিয়েট ম্যানেজার মোকসেদুর রহমান বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ২৬ অক্টোবর মৃত জালাল আহম্মেদ ও তার মা নুরজাহান বেগম সহ ৪ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং ৪১/২০১৫।

মামলা করায় হয়রানির ভয়ে ওই মৃত ব্যবসায়ীর মা নুরজাহান বেগম এখন দিশেহারা। মৃত ব্যবসায়ি জালালের সহোদর আমিন হাওলাদার বলেন, তার ভাই মৃত্যুর আগ পর্যন্ত নিয়মিতভাবে ব্র্যাক ব্যাংকের কিস্তি পরিশোধ করেছেন। হঠাৎ তিনি (জালাল) মারা যায়।

সেক্ষেত্রে নিয়মানুযায়ী মৃত ব্যক্তির নামে ইনস্যুরেন্স করা টাকা দিয়ে ব্র্যাক ব্যাংক হিসাব সমন্বয় করার কথা থাকলেও রহস্যজনক কারনে তার মৃত ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে ব্র্যাক ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। মামলা দেয়ায় বৃদ্ধা নুরজাহান বেগম বেশ চিন্তিত হয়ে পড়েছেন।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী বৃদ্ধা নূরজাহান বেগম ব্র্যাক ব্যাংকের হয়রানি থেকে রেহাই পেতে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

লাইভ

টপ