ইতিহাসের সাক্ষী বরিশালের লাকুটিয়া জমিদার বাড়ি | বরিশালটাইমস
৮ মিনিট আগের আপডেট বিকাল ২:০ ; বৃহস্পতিবার ; ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৯
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

ইতিহাসের সাক্ষী বরিশালের লাকুটিয়া জমিদার বাড়ি

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
১১:৫০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮

বরিশাল শহর থেকে আট কিলোমিটার উত্তরে লাখুটিয়া বাজার। এরপর ইট বিছানো হাঁটাপথ। কিছু দূর যাওয়ার পর মিলবে জমিদারদের অনেক মন্দির আর সমাধিসৌধ। রাস্তার ডান পাশে। এগুলোর বেশির ভাগই আটচালা দেউল রীতিতে তৈরি। শিখররীতির মন্দিরও। পাঁচটা মন্দির এখনো বলতে গেলে অক্ষতই আছে।

খোসালচন্দ্র রায় লিখিত ‘‘বাখরগঞ্জ ইতিহাস গ্রন্থ’’ থেকে জানা গেছে, রূপচন্দ্র রায় ছিলেন এই জমিদার বংশের প্রতিষ্ঠাতা। তাঁর পৌত্র রাজচন্দ্র রায়ের সময়ে এর প্রতিপত্তি বাড়ে। তিনিই মূল জমিদার বাড়িটি তৈরি করেছিলেন। তাঁর বসানো হাটকেই সবাই বলে বাবুরহাট। তিনি প্রজাদরদি ছিলেন।

লাখুটিয়া থেকে বরিশাল অবধি রাস্তা তাঁর আমলেই তৈরি হয়েছিল। বেশ ঘটা করে তিনি রাস উৎসব করতেন। তাঁর দুই পুত্র রাখালচন্দ্র রায় ও প্যারীলাল রায় ব্রাহ্মধর্মের অনুসারী ছিলেন।

লাখুটিয়া জমিদারদের সব থেকে সুন্দর স্থাপনা হলো মন্দিরগুলো। সবচেয়ে উঁচু মন্দিরের শিলালিপি থেকে জানা গেছে, অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী পংকজকুমার রায়চৌধুরী তাঁর স্বর্গত পিতা সুরেন্দ্রকুমার রায়চৌধুরী এবং মাতা পুষ্পরাণী রায়চৌধুরীর পুণ্যস্মৃতির উদ্দেশে এটি তৈরি করেছেন।

লোহার দরজা পেরিয়ে জমিদার বাড়ির মূল প্রবেশপথের বাঁ পাশেই শান বাঁধানো ঘাটওলা সুন্দর একটি পুকুর। বাড়িটি এখন বিএডিসির তত্ত্বাবধানে আছে। বাঁ পাশে বিএডিসির ট্রাক্টর রাখার ঘর আর ডান পাশে তাঁদের গোডাউন আর অফিস কক্ষ। পেছনে আছে পাকা উঠান, বীজ শুকানো হয়।

বাড়িটির ওপর কর্তৃপক্ষের কোনো মায়া-মমতা আছে বলে মনে হলো না। বাড়ির তিন ধারে ধানের জমি।

এলাকাবাসী ও স্থানীয় প্রবীণ ব্যক্তি বিশেষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, অনেক আগেই রায়বাহাদুররা ভারতে চলে গেছেন। বছর দশেক আগে একবার ছোট বাহাদুর এসেছিলেন। বাড়ির কাছেই আমবাগান। বাগানটি গড়ে উঠেছে বিশাল এক দীঘির পাড়ে। একে সবাই রাণীর দিঘি বলে। শীতের সময় এখানে অনেকেই পিকনিক করতে আসেন।

এখানে তিনটি মন্দির, দুইটি পুরোনো বাড়ি ও একটি বিশাল দিঘী রয়েছে।

যেভাবে যাবেন
ঢাকার সদরঘাট থেকে বরিশাল যাওয়ার অনেক লঞ্চ মেলে। ভাড়া ২৫০ থেকে ৪৫০০ টাকা (ডেক- কেবিন)। নথুল্লাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে প্রথমে যেতে হয় নতুন বাজার শ্মশান মোড় বাসস্ট্যান্ড। সেখান থেকে বাস, অটোরিকশা, আলফা গাড়ি , মোটরসাইকেল ইত্যাদি যোগে বাবু বাজার বাসস্ট্যান্ড এ নামতে হবে এবং অল্প পথ পায়ে হেটে যেতে হবে। লাখুটিয়া বাবুরহাটে যাওয়ার টেম্পো পাওয়া যায়। ভাড়া ১৫ টাকা।’

খবর বিজ্ঞপ্তি, বরিশালের খবর

আপনার মতামত লিখুন :




ভুইয়া ভবন (তৃতীয় তলা), ফকির বাড়ি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৭১৬-২৭৭৪৯৫
ই-মেইল: barisaltime24@gmail.com, bslhasib@gmail.com
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  উজিরপুরে যাত্রিবাহি বাসের চাপায় ২ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র নিহত  আগুনে পুড়ে প্রাণ গেল ৭০ জনের  শোক প্রকাশ করে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর  নিমতলী থেকে চুড়িহাট্টা সরকারের ‘ঘুমে’ বাড়ছে কান্না  তোমার কোলে তোমার বোলে কতই শান্তি ভালবাসা...  চকবাজারে ভয়াবহ আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৩৩ ইউনিট  বরিশালে ভাষাশহীদদের স্মরণ করলেন যারা...  ঠাকুরগাঁও আদালতে বিজিবির বিরুদ্ধে মামলার আবেদন  কলাপাড়ায় বাসার সামনে কলেজ শিক্ষিকাকে ছুরিকাঘাত  বরিশালে কলেজে ইত্তেফাক সম্পাদকের শুভেচ্ছা বিনিময়