• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

আ. লীগের দুই প্রার্থীর কর্মীদের সংঘর্ষে আহত ১০

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট১২:০২ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৬, ২০১৬

বরিশাল: ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আ.লীগ মনোনীত এবং বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে গুরুতর ৫ জনকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় ইউনিয়নের বুড়িরহাট এলাকার রশিদ মাস্টারের বাড়ির সামনে এ সংঘর্ষ হয়।

বিদ্রোহী প্রার্থী মালি মিজান জানান, বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ৫ নম্বর ওয়ার্ডে আব্দুর রশিদ মাস্টারের বাড়িতে নির্বাচনী উঠান বৈঠক শুরু করেন।

এসময় আ. লীগ মনোনীত প্রার্থী সোহরাব হোসেন বাবুল মৃধা ও তার ক্যাডারদের নিয়ে সেখানে প্রচারণায় আসে। তারা উঠান বৈঠকে আসা ভোটারদের মাঝে নৌকা প্রতীকের লিফলেট বিতরণ শুরু করে। এ নিয়ে বাবুল মৃধার সাথে তার তর্ক হয়। এক পর্যায় কর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

পরবর্তীতে খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি শান্ত করে। এসময় পুলিশ একজনকে আটক এবং  আহতদের চিকিৎসার জন্য শেবাচিম হাসপাতালে পাঠায়।

আহতরা হলেন- রেহানা বেগম (৫০), মানিক হাওলাদার (৭০), সামসুল হক (৭০), হেমায়েত উদ্দিন (৪০) ও আব্দুল রারেক (৪৫)। এরা সবাই বিদ্রোহী প্রার্থী মিজানুর রহমান ওরফে মালি মিজানের কর্মী বলে জানা গেছে।

আ. লীগ মনোনীত প্রার্থী বাবুল মৃধা জানান, ওই এলাকায় গণসংযোগকালে বিদ্রোহী প্রার্থীর ক্যাডার কর্মীরা হামলা চালায়। এসময় তার কর্মীরা এগিয়ে গেলে বিষয়টি সংঘর্ষের রূপ নেয়।

এ প্রসঙ্গে নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, ক্ষমতাসীন দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে আ. লীগ মনোনীত এবং বিদ্রোহী প্রার্থীর মাঝে মারামারি হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি।

লাইভ

 

টপ