• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

না ফেরার দেশে অভিনেত্রী দিতি

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট৭:২৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ২০, ২০১৬

না ফেরার দেশে চলে গেলেন অভিনেত্রী পারভীন সুলতানা দিতি। দীর্ঘদিন ক্যানসারের সঙ্গে যুদ্ধ করে পরপারে পাড়ি জমালেন তিনি।

রবিবার বিকেল ৪টা ৫ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি (ইন্না…..রাজিউন)।

হাসপাতালের কমিউনিকেশন অ্যান্ড মার্কেটিং বিভাগের প্রধান সাগুফা আনোয়ার এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত বছরের মাঝামাঝি অসুস্থ হয়ে পড়েন দিতি। তখন পরীক্ষায় তার মস্তিষ্কে টিউমার ধরা পড়ে। এরপর ২৫ জুলাই তাকে ভারতের চেন্নাইয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা এই জনপ্রিয় অভিনেত্রীকে। গত ২০ সেপ্টেম্বর দেশে ফেরেন দিতি। চেন্নাই থেকে ফিরে আসার পর বাসায় ছিলেন এ অভিনেত্রী।

মস্তিস্কে ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে পরে দ্বিতীয় দফায় ভারতে চিকিৎসা নিতে গিয়েছিলেন আশির দশকের নায়িকা পারভীন সুলতানা দিতি। কিন্তু সেখানে তার চিকিৎসকরা খুব আশা জাগানোর মতো কিছু করতে পারেননি। তাই বাধ্য হয়ে মুমূর্ষ দিতিকে দেশে নিয়ে আসা হয় গত জানুয়ারিতে।

দেশে ফেরার পরপরই তাকে ভর্তি করা হয় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে।

১৯৬৫ সালের ৩১ মার্চ রায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁওয়ে জন্মগ্রহণ করা দিতি অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র উদয়ন চৌধুরী পরিচালিত ‘ডাক দিয়ে যাই’।

দিতি অভিনীত মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম চলচ্চিত্র ছিল ‘আমিই ওস্তাদ’। ছবিটি পরিচালনা করেছিলেন আজমল হুদা মিঠু। এরপর দিতি প্রায় দুই শতাধিক ছবিতে কাজ করেছেন।

সুভাষ দত্ত পরিচালিত ‘স্বামী স্ত্রী’ ছবিতে দিতি আলমগীরের স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেন। এই ছবিতেই অভিনয় করে দিতি প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

অসুস্থ হওয়ার আগ পর্যন্ত দিতি ছোট পর্দার কিছু একক ও ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছেন । এ ছাড়া তিনি রান্না বিষয়ক অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করেছেন।

লাইভ

টপ